মাধবদীতে তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল আটক ও প্রাসঙ্গিক কথা


এমদাদুল ইসলাম খোকন: নরসিংদীর দক্ষিনাঞ্চল শিল্প শহর মাধবদী ও তার আশপাশ এলাকায় মদ আর মাদকের দৌরাত্ব ক্রমেই বেড়ে চলছে। অতিসম্প্রতি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা মাধবদীর একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এক অনুষ্ঠানে এসে মাদকের ব্যপারে কড়া সমালোচনা করেন। তিনি অভিভাবকদের সচেতনতা উপর গুরুত্বআরোপ করেন। মাধবদীতে ইয়াবাসহ বিভিন্ন মাদকদব্র্য এখন হাত বাড়ালেই পাওয়া যায়। অভিভাবকদের সচেনতার কথা বলে পুলিশ প্রসাশনের দায়িত্বের কথা এড়ানো যায়না। এই ব্যাপারে জাতীয় পত্রিকায়ও লেখা লেখি হয়েছে। এলকাবাসীর বক্তব্য পুলিশ আন্তরিক হলে, দায়িত্ববান হলে মাদক নির্মুলসম্ভব। কিছু দিন পূর্বে গোয়েন্দা পুলিশের কয়েকজন কর্মকর্তা নগদ ঘুষের টাকাসহ সেনাবাহিনীর হাতে আটক হয়। ঢাকার এক পুলিশ ঘুষের কারণে বরখাস্ত হয়েছে। পুলিশ অপরাধ দমন না করে নিজেই অপরাধ করলে সে সমাজে অবক্ষয় দেখা দেয়, কাঠামো ভেঙ্গে পরে, সমাজ অস্থিতিশীল হয়। তবে মাঝে মধ্যে পুলিশের ইতিবাচক কর্মকান্ড দেখলে আমরা আশ্বান্নিত হই-ভাবি, পুলিশতো জণগনের বন্ধু।
এদিকে আমাদের মাধবদীর পুলিশ একটি বিলাশ বহুল গাড়ীসহ তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল আটক করছে। গত ২৬ অক্টোবর রাতে মাধবদীর পাঁচদোনা থেকে ঢাকার ডিবি পুলিশের সহায়তায় গাড়ীটি আটক করা হয়। তবে পুলিশের উপস্থিতি লক্ষ করে গাড়ীতে থাকা সবাই পালিয়ে যায়।
নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) শাহরিয়ার আলম জানান,ঢাকার একটি গোয়েন্দা পুলিশের টিম কুমিল্লা থেকে গাড়ীটিকে ফলো করেছিলো। ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক বয়ে নরসিংদী জেলায় প্রবেশ মুখে মাধবদী থানা পুলিশের সহায়তায় তাদের আটক করতে সক্ষম হয়। পরে গাড়ীর ভিতরে থাকা কার্টুন দিয়ে মুরানো তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল পাওয়া যায়।
মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তদন্ত আবুল কালাম জানান, নিষিদ্ধ ঘোষিত তিন হাজার বোতল ফেন্সিডিল ও কালো রংঙ্গের একটি বিলাশ বহুল গাড়ী জব্দের ঘটনায় মাদক আইনে একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। এখানে উল্লেখ্য নরসিংদীর দক্ষিনাঞ্চল শিল্প শহর মাধবদী ও তার আশপাশ এলাকা,কাঁঠালিয়া, শেখেরচর,পাঁচদোনা এবং পার্শ্ববর্তী পুরিন্দা এলাকায় মাদকের দৌরাত্ব চরমে। শুধু অভিভাবক নয় পুলিশে এই ব্যাপারে কার্যকরী ও জোড়ালো ভূমিকা রাখতে হবে। পুলিশ যদি সত্যিকারের পুলিশের দায়িত্ব পালন করেন তা হলে মাদক সেবী ও মাদক বিক্রেতারা সমাজে চিহ্নিত হবে, তারা আর রাজনৈতিক ছত্রছায়ায় প্রকাশ্য দিবালোকে নেতা সাজতে পারবে না। এই ব্যাপারে সামাজিক সংগঠন গুলোকেও এগিয়ে আসতে হবে- যেভাবে “মাদক নির্মূল কমিটি”( মানিক) মাধবদীতে মাদক নির্মূলে ভূমিকা রেখে আসছে। (আগামী পর্বে ট্রাফিক পুলিশ ও যানজট….)

লাইক দিয়ে শেয়ার করুন
0
madhabdi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *