সজীব ওয়াজেদ জয় ছাত্রলীগকে নিয়ে আগামী দিনের নেতৃত্ব দিবে-পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

খন্দকার শাহিন,মাধবদী ওয়েব ডটকম,শনিবার,২ ডিসেম্বর ২০১৭: বাংলাদেশ সরকারের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী লে: কর্ণেল (অব:) মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম হিরু (বীর প্রতীক) এম.পি বলেছেন,বঙ্গবন্ধু যে ভাবে ছাত্রলীগকর্মীদের গঠন করে গেছে সে ভাবে প্রতিটি জেলা/উপজেলা ও থানা গুলোতে ছাত্রলীগ নেতারা ত্যাগী হয়ে উঠছে। আমাদের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কারিগর জননেত্রী শেখ হাসিনার ছেলে সজিব ওয়াজেদ জয় বাংলাদেশ ছাত্রলীগকে নিয়ে আগামী দিনের নেতৃত্ব দিবে। ১ ডিসেম্বর শুক্রবার রাতে মাধবদী এস,পি (সতী প্রসন্ন) ইনস্টিটিউশন মাঠে নরসিংদী সদর ও মাধবদী থানা শাখার সম্মেলনে তিনি প্রধান অতিথি বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, আয়োজিত সম্মেলনের ছাত্রলীগর কর্মীদের কোন কুলসতা নেই। তারা কমিটির গঠনের কোনরূপ অবহেলা করে নাই, আর নরসিংদী সদর ও মাধবদী থানার ছাত্রলীগ কর্মীরাও অনেক প্রশংসিত হয়েছে।
তিনি বলেন,আওয়ামীলীগ প্রতিষ্ঠার আগে ছালত্রলীগ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। ৫২ এর ভাষা আন্দোলন ৭১ এর সংগ্রামে বাংলাদেশ ছাত্রলীগে সবচেয়ে ত্যাগী ভূমিকা রেখে ছিলো। সেই সাথে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সর্বক্ষেত্রে ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলছে।

নরসিংদী সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো: আবু দাউদ মিয়ার সঞ্চালনায়,আয়োজিত সম্মেলনে নরসিংদী সদর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: জাকারিয়ার সভাপতিত্ত্বে সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন,বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ,তিনি বলেন, লেখাপড়া ছাড়া বিকল্প কোন কিছু নেই,বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নীতিকে রাজনৈতিক ভাবে গুরুত্বসহ বিশ্ববাসী এখনো দিক নির্দেশনা হিসেবে ব্যবহার করে। তার একমাত্র গুণ হচ্ছে উচ্চ শিক্ষা। বঙ্গবন্ধুর সু-যোগ্য কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তার পিতার অনুসারী সেই সাথে জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সব সময় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের অনুসারী। এ সম্মেলন প্রমাণ করেছে নরসিংদী সদর ও মাধবদী থানার ছাত্রলীগ কর্মীরা সত্যিকারের বঙ্গবন্ধুর সৈনিক।
তিনি আরো বলেন বঙ্গবন্ধু হত্যার কিছু অংশের বিচার হলোও ৪২ বছরেও ঘাতকদের পুরোপুরি নির্মূল করতে পারেনি আমরা। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পুনঃরায় নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামীলীগকে নির্বাচিত করতে হবে। আওয়ামীলীগের বিজয় ধরে রাখতে নির্বিক ভূমিকা রেখে চলছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।
সম্মেলনে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: ইসহাক খলিল বাবু। প্রধান বক্ত্যা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসলাম রিমন বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সাংসদ ও পলাশ উপজেলা আওয়ামীলীগে সভাপতি আলহাজ্ব আনোয়ারুল আশরাফ খাঁন দিলিপ, নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আলহাজ্ব জি.এম তালেব হোসেন, নরসিংদী পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব কামরুল ইসলাম, মাধবদী পৌরসভার মেয়র হাজী মোশাররফ হোসেন প্রধান মানিক ও নরসিংদী জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেনসহ আওয়ামীলীগের অংঙ্গ-সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।
এ সম্মেলনে এক যোগ পূর্বে গঠিত বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নরসিংদী সদর উপজেলা শাখা কমিটি বিলুপ্ত করা হয়। পরে একই মঞ্চে রাত ১০টায় নরসিংদী জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আহসানুল ইসলাম রিমন এর সঞ্চালনায় নরসিংদী সদর থানা ও মাধবদী থানার নতুন দুটি কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের নাম ঘোষনা করেন নরসিংদী জেলা শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মো: ইসহাক খলিল বাবু।
তারা হলেন নরসিংদী সদর থানা শাখার ছাত্রলীগের সভাপতি সারোয়ার হোসেন ফয়সাল ও সাধারণ সম্পাদক শেখ শামীম। মাধবদী থানার সভাপতি মাসুদ রানা ও সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন শাহীনকে আগামী এক বছরের জন্য নির্বাচিত করা হয়।
সেই সাথে দুটি কমিটির নব-নির্বাচিত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানান অতিথিবৃন্দরা।

লাইক দিয়ে শেয়ার করুন
0
madhabdi

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *